চরম আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন দীপিকা। ইস্যু আর কিছু না , পদ্মাবতী’ সিনেমা এবং সিনেমায়  রাজপুতদের ইতিহাস বিকৃত করা হয়েছে বলে প্ৰথম থেকেই নাখোস ছিলো করণী সেনা। দীপিকার ঠোঁটকাটা মন্তব্য আগুনে ঘি ঢালা ছাড়া আর কিছুই না। এই ছবির মুক্তি নিয়ে রাষ্ট্রে উচ্চ পর্যায়ের কর্তাদের ঘুম হারাম। 
এদিকে মেরঠের রাজপুত সংগঠন দীপিকার মাথার দাম ঘোষণা করেছে ৫ কোটি।
দীপিকা ‘দেশ পিছিয়ে পড়েছে’ বলে তিনি যে মন্তব্য করেছিলেন, তাঁর প্রতিবাদেই ভারত বন্‌ধের ডাক দেওয়া হয়েছে।  অনেকে আবার মনে করেন, সিনেমার লগ্নিকে হাজার গুণ বাড়াতেই এই নাটক।  সিনেমার টিকেটের কাটতি বাড়ায় হর হামেসা এমন নাটক সাজান হয়।

কিছুদিন আগে মোদির সামনে সর্ট স্কার্ট পরে পায়ের উপর পা তুলে কথা বলায় অনেকের মুখে রাগের ফেনা তুলেছিলেন। এখন শুরু হয়েছে নতুন নাটক। সব মিলিয়ে মোটেও সময় টা ভালো যাচ্ছে না।